Just another WordPress site

MENU

চেয়ারম্যান এর বাণী

  • HOME »
  • চেয়ারম্যান এর বাণী

chairman

বিদ্যুৎ সভ্যতার চাবিকাঠি এবং আর্থ সামাজিক উন্নয়নের পথিকৃত৷ এ বাস্তবতাকে উপলদ্ধি করে দেশের গ্রামীণ জনগণের জীবনমান ও আর্থ সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে ৩১শে অক্টোবর ১৯৭৭ সালে মহামান্য রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ বলে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড প্রতিষ্ঠা করা হয়৷ সমবায়ের সার্বজনীন নীতিমালা এবং ‘লাভ নয় লোকসান নয়’ এ দর্শণের উপর ভিত্তি করে এবং গ্রাহকগণকে সমিতির প্রকৃত মালিকানার স্বীকৃতি দিয়ে এ যাবত দেশের ৪৮৮ টি উপজেলার সমন্বয়ে ৭৮ টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি গঠিত হয়েছে৷

পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমের আওতাভুক্ত এলাকায় ডিসেম্বর/২০১৩ ইং পর্যন্ত নির্মিত বিদ্যুতায়িত লাইন ২,৪৬,৩৭২ কিঃমিঃ ; যা নভেম্বর, ২০১৫ খ্রিঃ মাস পর্যনত্ম বৃদ্ধি পেয়ে দাড়িয়েছে ২,৮৮,৪৮৭ কিঃমিঃ অর্থাত্‍ বর্তমান সরকারের আমলে ৪২,১১৫ কিঃমিঃ নতুন লাইন নির্মাণ করে ৩৭.৬৪ লখ্ষ বিভিন্ন শ্রেণীর গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হয়েছে৷ নভেম্বর ২০১৪ খ্রিঃ মাস পর্যনত্ম সর্বমোট প্রায় ১ কোটি ০৬ লখ্ষ বিভিন্ন শ্রেণীর গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হয়েছে৷ একই সময়ে নতুন ১৬৪ টি ৩৩/১১ কেভি উপকেন্দ্র নির্মাণ করে উপকেন্দ্রের সংখ্যা ৭০৩ টিতে উন্নীতকরনসহ উপকেন্দ্রের মোট ৰমতা ৫২০০ এমভিএ হতে ৭৪৫০ এমভিএ-তে উন্নীত করা হয়েছে৷ এসকল অবকাঠামোর মাধ্যমে এ পর্যনত্ম ৫৫,৪৯৬টি গ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হয়েছে৷ সংযোগকৃত গ্রাহকের মধ্যে ১.৫২ লখ্ষ শিল্প সংযোগ ও ৩.০৬ লৰ সেচ সংযোগ রয়েছে৷ এর ফলে একদিকে যেমন বিপুল পরিমাণে গ্রামীন জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে দারিদ্র বিমোচনের ব্যবস্থা গ্রহণ নিশ্চিত হয়েছে-অন্যদিকে তেমনি অধিক ফসল উত্‍পাদনের ফলে দেশের খাদ্যে সয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে পল্লী বিদু্যতায়ন কর্মসূচী প্রভূত অবদান রেখে চলেছে৷ ১ কোটি ৯১ লখ্ষ ৫৫ হাজার আবাসিক সংযোগ প্রদানের ফলে আনুমানিক ৫ কোটি ৯৮ লক্ষ ব্যক্তি পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমের মাধ্যমে বিদু্যতের সুবিধা ভোগ করছেন৷ পল্লী বিদু্যতায়ন কার্যক্রমের ইতিবাচক প্রভাব বিদু্যতায়িত এলাকার সকল ক্ষেত্রে সুষ্পষ্টভাবে প্রতিভাত হচ্ছে৷

পল্লী অঞ্চলের জনসাধারণের একাংশ যেমন বিদু্যতের আলোকে উদ্ভাসিত হয়েছেন, অন্য অংশ যারা বিদ্যুতের সুবিধা প্রত্যাশী তারা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সমূহে বিদ্যুৎ প্রাপ্তির সম্ভাবনার বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছেন৷ তাদের চাহিদার প্রতি আমরা সচেতন৷ এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ পল্লী বিদু্যতায়ন বোর্ড ও সরকারের পক্ষ থেকে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে৷ এ প্রসংগে উল্লেখ করা প্রয়োজন যে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধাবনী উদ্যোগ “ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ” কর্মসূচী বাস্তবতায়নের জন্য ডিস্ম্বের ২০১৫ থেকে উপজেলা ভিত্তিক শতভাগ এলাকা পযায়ক্রমে বিদু্যতায়ন পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে

পল্লী অঞ্চলের জনসাধারণের একাংশ যেমন বিদু্যতের আলোকে উদ্ভাসিত হয়েছেন, অন্য অংশ যারা বিদ্যুতের সুবিধা প্রত্যাশী তারা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সমূহে বিদ্যুৎ প্রাপ্তির সম্ভাবনার বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছেন৷ তাদের চাহিদার প্রতি আমরা সচেতন৷ এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ পল্লী বিদু্যতায়ন বোর্ড ও সরকারের পক্ষ থেকে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে৷ জনসেবামূলক প্রতিষ্ঠান হিসেবে সকল শ্রেণীর গ্রাহকদের বক্তব্য শ্রবণ করে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব৷ গ্রামীণ জনগণের মুখে হাসি ফুটানোর জন্যই এ কার্যক্রমের সূচনা করা হয়েছিল৷ সে হাসি যেন মস্ন্লান না হয় সেদিকে আমাদের সর্বদা সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে৷ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কার্যক্রম পরিচালনার সকল ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা, সততা ও একনিষ্ঠতা বজায় রাখতে হবে৷ গ্রাহকদের সুবিধার্থে টেলিটকের ২১ হাজার সংগ্রহ পয়েন্ট থেকে এস এম এস এর মাধ্যেমে ১কোটি ২৮ লাখ গ্রাহকের বিদ্যুৎ বিল আদায়ের কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়েছে৷ এছাড়াও ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল আদায়ের কার্যক্রম অব্যাহত আছে৷ ফলে গ্রাহক কোনরূপ ভোগানত্মি ছাড়াই দিবা-রাত্রি ২৪ ঘন্টা তাদের সুবিধামত জায়গা থেকে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের সুযোগ পাচ্ছেন৷

 সমিতির সর্বস্তরের গ্রাহক সদস্যদের উন্নত সেবা প্রদান, গ্রাহকদের সমস্যার সমাধান এবং অধিক সংখ্যক গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করার চেতনায় সকলের সমন্বিত দৃপ্ত অঙ্গিকার ঘোষিত হবে-এ কামনা করছি৷ গ্রাহক সদস্যগণকে আহ্বান জানাচ্ছি যেন সমিতির উত্তরোত্তর উন্নয়নে স্ব-স্ব ক্ষেত্র থেকে তাঁরা সকল সময়ে সহযোগিতার হাত প্রসারিত রাখেন৷

আমি নরসিংদী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করছি এবং মহান আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করছি যেন তিনি সকল ক্ষেত্রে আমাদের সহায় হন৷

(মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন)
চেয়ারম্যান
বাপবিবো ।

Translation


PAGETOP
Copyright © Narsingdi pbs-2 All Rights Reserved.
Powered by WordPress & BizVektor Theme by Vektor,Inc. technology.